প্রতিবেদক : ফাঃ রবার্ট গনসালভেছ

Shahebganj Feast Day of Saint Joseph
Shahebganj Feast Day of Saint Joseph

১৭৬৩ খ্রীঃ থেকে পরবর্তী সুদীর্ঘ সময়ে বৃটিশ শাসক শ্রেনী পোশাক বানিজ্যের সুবাধে সাহেবগঞ্জ এলাকায় রাজকীয় পরিবেশে কুঠি বাড়ী ও ঘোড়াশাল ও নিরাপত্তার দুর্গ গড়ে তুলে নীলচাষ ও কাপড়ের ব্যবসা শুরু করে। বৃটিশদের ঐতিহ্যবাহী স্থাপনার পাশেই বর্তমান ডি সিলভাদের বসতি ও পরবর্তীতে বিংশ শতাব্দীতে স্বর্গীয় ফাঃ ডেন কেনার্ক সিএসসি গীর্জা প্রতিষ্ঠা করে সাধু যোসেফের নামে উৎসর্গ করেন। গত ১৯ শে মার্চ ২০১৮খ্রীঃ এখানে ভক্তি শ্রদ্ধায় ও ভালোবাসায় আপ্লুত হয়ে এ পর্বটি উৎসব ও নব জাগরণের আনন্দে পালন করে।

Saint Joseph Feast day
Saint Joseph Feast day at Shahebganj mission center

পর্বের প্রস্তুতি চলাকালে সাধু যোসেফের নভেনা প্রতিটি বাড়িতে পালন করে পর্বের দিন শোভাযাত্রা করে গীর্জায় প্রবেশ করে। সেখানে সাধু যোসেফের প্রতিকৃতিতে পুষ্প মাল্য, মোমবাতি প্রজ্জলন ও ধুপারতি দেওয়া হয়। পবিত্র খ্রীষ্টযাগে ফাঃ রবার্ট গনসালভেছ সাধু যোসেফের বিষয়ে বলেন যে, তিনি স্বপ্ন দেখে যথাযথ কাজ করে নীরবতায়, বাধ্যতায় ও বিন¤্র শ্রদ্ধায় পরম পবিত্র ঈশ্বরের ইচ্ছা পালন করেছেন। কুমারী মাতা মারীয়াকে ও শিশু যীশুকে নিষ্কাম ভালোবাসায় আলিঙ্গন করে নিরাপদে ও শান্তিতে রেখেছেন। সাধু যোসেফ পরিবারের প্রতিপালক, বিশ্বাসী খ্রীষ্ট ভক্তদের প্রতিপালক, গীর্জার প্রতিপালক ও যারা স্বামী স্ত্রী হয়ে সন্দেহে আক্রান্ত তাদেরও প্রতিপালক।

Parishoners of Shahebganj at the feast day
Parishoners of Shahebganj at the feast day

খ্রীষ্টযাগের শেষে সবাই প্রতিপালক সাধু যোসেফের প্রতিকৃতির সামনে ভক্তি ও প্রনিপাত করে আশির্বাদ গ্রহন করেন। এবারে সাধু যোসেফের পর্ব পালনে বৃহত্তর পরিমন্ডলে ঢাকা, চট্টগ্রামে বসবাসরত সাহেগঞ্জের আত্মীয়স্বজন যথেষ্ট হাত বাড়িয়ে সহযোগিতা করেছেন। দুপুরে সবাই সামাজিক অংশগ্রহনে ছেলে-মেয়েদের নাচ গান ও কবিতা উপভোগ করেন। শেষে কাচ্চি বিরিয়ানি খেয়ে একসাথে সবাই দুপুরের খাওয়া গ্রহণ করে। এবার উৎসবে বিথী ডিসিলভা, বার্নাড ডিসিলভা ও যোহন ডি সিলভা দায়িত্ব পালন করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × 2 =